মঙ্গলবার ২৬ জানুয়ারি ২০২১ ১২ মাঘ ১৪২৭
 
শিরোনাম: ক্রিকেট দলকে প্রধানমন্ত্রীর অভিনন্দন       টাইগারদের কাছে বাংলাওয়াশ উইন্ডিজ       ঢাকা সাব-এডিটরস কাউন্সিলের সভাপতি মামুন সম্পাদক হৃদয়       ১৮ মার্চ থেকে বইমেলা       নৌযান শ্রমিকদের কর্মবিরতি, যাত্রীদের দুর্ভোগ       বাংলা একাডেমি সাহিত্য পুরস্কার পেলেন যারা       পি কে হালদারের ২ সহযোগী পাঁচদিনের রিমান্ডে      


মানবপাচার মামলা
নৃত্যশিল্পী ইভানের বিরুদ্ধে প্রতিবেদন ৩১ জানুয়ারি
বিনোদন ডেস্ক
প্রকাশ: বুধবার, ১৩ জানুয়ারি, ২০২১, ৫:২০ পিএম |

মানবপাচার আইনে করা মামলায় নৃত্যশিল্পী ও কোরিওগ্রাফার ইভান শাহরিয়ার সোহাগের বিরুদ্ধে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল পিছিয়ে আগামী ৩১ জানুয়ারি দিন ধার্য করেছেন আদালত। 
বুধবার ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরার আদালত নতুন এদিন ধার্য করেন। 
এদিন মামলায় তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের তারিখ ধার্য ছিল। কিন্তু মামলার তদন্ত কর্মকর্তা প্রতিবেদন দাখিল করতে পারেননি। এজন্য আদালত প্রতিবেদন দাখিলের জন্য আগামী ৩১ জানুয়ারি নতুন দিন ধার্য করেন।

এর আগে, গত ২৮ সেপ্টেম্বর রিমান্ড শেষে আসামি ইভানকে আদালতে হাজির করা হয়। এ সময় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন। আবেদনের প্রেক্ষিতে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। 
গত ২১ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম বেগম ইয়াসমিন আরা শুনানি শেষে তার সাত দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এর আগে গত ১৫ সেপ্টেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে মানবপাচারের সঙ্গে আন্তর্জাতিক দালাল চক্রের কে বা কারা জড়িত তা জানার জন্য ইভানকে সাত দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডির এসআই মো. কামরুজ্জামান। 

এদিকে দুবাই পুলিশের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গত মাসে মানবপাচারকারী চক্রের মূলহোতা আজম খান এবং তার চার সহযোগীকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে নৃত্যশিল্পী সোহাগকে গত ১১ সেপ্টেম্বর রাতে রাজধানীর নিকেতন থেকে গ্রেফতার করে সিআইডি। 
গত ২ জুলাই মূলহোতা আজম খানসহ নয়জনের বিরুদ্ধে মানবপাচার আইনে লালবাগ থানায় একটি মামলা করেন সিআইডির সহকারী পুলিশ সুপার মৃনাল কান্তি শাহ।
মামলার আসামিরা হলেন- আলামিন হোসেন ওরফে ডায়মন্ড (২৬), স্বপন হোসেন (২৮), আজম খান (৪৫), নাজিম (৩৬), এরশাদ ও নির্মল দাস (এজেন্ট), আলমগীর, আমান (এজেন্ট) ও শুভ (এজেন্ট)।

মামলার এজাহারে বলা হয়, আজম খান তার দুই ভাইসহ মামলার আসামিরা দুবাইয়ের হোটেল ও ড্যান্স বারে মেয়েদের যৌনকর্মে বাধ্য করতেন। এই তিনজনের প্রতিনিধিরা দেশের বিভিন্ন নাচের ক্লাব বা সংগঠন থেকে মেয়েদের সংগ্রহ করে কাজ দেয়ার নামে তাদের দুবাই পাঠাচ্ছিলেন। দুবাই পুলিশের দেয়া তথ্য ধরে সিআইডি গত জুলাই মাসে আজম খান এবং তার দুই সহযোগী ডায়মন্ড ও আনোয়ার হোসেন ওরফে ময়নাকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার হন আজমের এ-দেশীয় প্রতিনিধি নির্মল সরকার ও মো. ইয়াছিন।
আজম খান এবং এ দেশে তার দুই প্রতিনিধি নির্মল সরকার ও মো. ইয়াছিন আদালতে সম্প্রতি স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। ওই জবানবন্দিতে তারা গডফাদার হিসেবে বাড্ডার সজীব ও ময়মনসিংহের অনীকের নাম বলেছেন। 

আজম খান জবানবন্দিতে বলেছেন, লালবাগের স্বপন, আল আমিন ওরফে ডায়মন্ড, বংশালের ময়না, চট্টগ্রামের মাহাফুজ ও ময়মনসিংহের অনীক তাকে মেয়ে সংগ্রহের কাজে সাহায্য করেন। বাড্ডার সজীব ও ময়মনসিংহের অনীকেরও দুবাইতে ড্যান্স বার আছে। 
আজমের ভাই নাজিমের বন্ধু মো. ইয়াছিন ও নির্মল ড্যান্স একাডেমির নির্মল সরকার তাদের জবানবন্দিতে বলেন, তারা আজম খান ছাড়াও সজীবের জন্য নারী পাচার করেছেন।







 সর্বশেষ সংবাদ

করোনায় বিশ্বে ধনীরা আরো ধনী হয়েছে অক্সফামের প্রতিবেদন
মির্জা ফখরুলের ডিমেনশিয়া রোগ হয়েছে কিনা সন্দেহ হচ্ছে: তথ্যমন্ত্রী
মনে যেন না হয় যে পুলিশি রাষ্ট্র কায়েম হয়ে গেছে
বিএনপি এদেশে প্রতিহিংসার  রাজনীতির জনক: কাদের
দেশে শীতের তীব্রতা কমেনি
টিকা পেতে নিবন্ধন করবেন যেভাবে
আরও ১৮ জন মৃত্যু  শনাক্ত ৬০২
আরো খবর ⇒

 সর্বাধিক পঠিত

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের খাদ্য নিরাপত্তা বিষয়ক ট্রেনিং অনুষ্ঠিত
কোটালীপাড়ায় রাস্তা নির্মাণে বাঁধা, এলাকাবাসীর ক্ষোভ
সিরাজগঞ্জে পৌর আ’লীগ নেতার বাড়ীতে বোমা নিক্ষেপ
নোয়াখালীতে আ’লীগ সভাপতিকে কুপিয়ে জখম
সিরাজগঞ্জে ইয়াবাসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার
জয়পুরহাটে মাদক, জঙ্গিবাদ, নারী নির্যাতন প্রতিরোধে জনসচেতনতামূলক সমাবেশ
সৈয়দ আহমদ উল্লাহ্ (ক.) মাইজভান্ডারীর ওরশ সম্পন্ন
প্রকাশক: এম এন এইচ বুলু
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মাহফুজুর রহমান রিমন  
বিএনএস সংবাদ প্রতিদিন লি. এর পক্ষে প্রকাশক এম এন এইচ বুলু কর্তৃক ৪০ কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ, বুলু ওশেন টাওয়ার, (১০তলা), বনানী, ঢাকা ১২১৩ থেকে প্রকাশিত ও শরীয়তপুর প্রিন্টিং প্রেস, ২৩৪ ফকিরাপুল, ঢাকা থেকে মুদ্রিত।
ফোন:০২৯৮২০০১৯-২০ ফ্যাক্স: ০২-৯৮২০০১৬ ই-মেইল: [email protected]